1. crimeletter24@gmail.com : crimelet_crimelet :
বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০৩:১৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
গোপালগঞ্জে বশেমুরবিপ্রবিতে নিহতের ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও মিছিল দুর্নীতি দমনে সরকারের জিরো টলারেন্স নীতি বাস্তবায়নের আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গোপালগঞ্জে হেলমেট বিহীন চালকদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থার নির্দেশ- জেলা প্রশাসক গোপালগঞ্জে কোটা বিরোধীদের শ্লোগানের প্রতিবাদে মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ রাজশাহীতে এটিএন বাংলার সাংবাদিক সুজাউদ্দিন ছোটন এর বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মামলায় বিএমইউজের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ আদমদীঘিতে পোনা মাছ বাজরের দুরাবস্থা ; প্রায় এক হাজার ব্যবসায়ী বেকার গোপালগঞ্জে টুঙ্গিপাড়ায় চাঁদা আদায় করতে গিয়ে জনতার হাতে আটক -০১ নড়াগাতীতে সড়কের সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ!স’মিল থেকে উদ্ধার স্থানীয় সাংসদের হস্তক্ষেপ কামনা তানোরে বিচারের বাণী নিভৃতে কাঁদছে নাদিয়া বোর্ডের নির্বাহী সভা বৃহস্পতিবার

পঞ্চগড়ে জেলা প্রশাসনের উপহার সেমি পাকা ঘরে প্রথম ঈদ ইয়ার জানের

  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন, ২০২৪
  • ৬১ ০৫ বার পঠিত

মোঃ রেজাউল করিম আলম, পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধিঃ সাফ অনুর্ধ্ব ১৬ চ্যাম্পিয়নশিপে জয়ের নায়ক পঞ্চগড়ের প্রমিলা ফুটবলার (গোলরক্ষক) ইয়ারজান বেগমকে সেমি পাকা ঘর উপহার দিয়েছেন পঞ্চগড়ের জেলা প্রশাসন। বুধবার দুপুরে সদর উপজেলার হাড়িভাসা ইউনিয়নের খোপড়াবান্দি গ্রামে ইয়ারজান কে দেয়া ঘরের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক জহুরুল ইসলাম। পরে ইয়ারজানের হাতে ঘরের প্রতিকী চাবি তুলে দেন জেলা প্রশাসক মো জহুরুল ইসলাম
ঘরের চাবি হস্তান্তরের সময় সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা জাকির হোসেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মালিহা খানম, পঞ্চগড় জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মিনহাজুর রহমান, হাড়িভাসা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইয়েদ নুর ই আলম, ইয়ারজানের বাবা আব্দুর রহমান, মা রেনু বেগম সহ পরিবারের সদস্যরা ও প্রতিবেশিরা উপস্থিত ছিলেন।
জেলা প্রশাসনের অর্থায়নে প্রায় সাড়ে ৯ লাখ টাকা ব্যায়ে নির্মাণ করা ইয়ারজান নীড়ে ওয়াশরুম কাম টয়লেট ও সুপেয় পানির ব্যবস্থাও করা হয়েছে।
জেলা প্রশাসন জানায়, সাফ জয়ী ইয়ারজানের মা রেনু বেগম দিনমজুর করে সংসার চালাতেন। বাবা আব্দুর রাজ্জাক হাপানি রোগী হওয়ায় কোন কাজ কর্ম করতে পারেন না। মায়ের টাকা দিয়েই কোন মতে মিলতো দুমুঠো ভাত। ঘরের অবস্থা ছিলো আরও জরাজীর্ন। বেড়াচাটির ভাঙাচোরা ঘরে বসবাস করতেন তারা। ছিলো না একটি ভালো টয়লেট। সাফ জয়ের পর বিষয়টি নজরে আসে জেলা প্রশাসনের। পরে প্রশাসনের উদ্যোগে প্রায় ৪ লাখ টাকা ব্যয়ে দুই কক্ষ বিশিষ্ট একটি সেমি পাকা ঘর এবং প্রায় সাড়ে ৫ লাখ টাকা ব্যয়ে ওয়াশরুম কাম টয়লেট ও সুপেয় পানির ব্যবস্থা করা হয়েছে। ঈদের আগেই এমন উপহার পেয়ে উচ্ছসিত ইয়ারজান ও তার পরিবার।
ইয়ারজান বলেন, ঈদের আগে আমার জন্য এটি দারুন একটি উপহার। আমি খুব খুশি হয়েছি। জেলা প্রশাসক আমার সব সময় খোঁজ খবর নিয়েছেন। এখন বাড়ি উপহার দিলেন।এই বাড়িতে বাবা মা আর বোনদেরকে নিয়ে এখন থেকে নতৃন ঘরে থাকবে।
জেলা প্রশাসক জহুরুল ইসলাম বলেন, আমরা চেয়েছি পঞ্চগড়ের কৃতিসন্তান ইয়ারজান ও তার পরিবার যেন সম্মানের সাথে বসবাস করতে পারে। এজন্য আমরা সেমি পাকা ঘর ও ওয়াশরুম কাম টয়লেট ও সুপেয় পানির ব্যবস্থা করে দিয়েছি। সরকার সব সময় তার পরিবারের পাশে রয়েছে। বর্তমান সরকার খেলা বান্ধব সরকার। আমরা সব সময় খেলোয়াড়দের পাশে রয়েছি।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ