1. crimeletter24@gmail.com : crimelet_crimelet :
বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০৮:০৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
নিখোঁজ হওয়ার ৮ দিন পর মিলল এমপি আনোয়ারুল আজিম আনারের মরদেহ গোপালগঞ্জে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষ গোপালগঞ্জে আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল দুই জনের-আহত ০২ গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই কলেজ শিক্ষকসহ প্রাণ হারালো ৪জন শ্রীবরদীতে মোটরসাইকেল ও অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই যুবক নিহত, আহত ১ নো হেলমেট নো ফুয়েল সিদ্ধান্ত কার্যকর করতে ট্রাফিক পুলিশের অভিযান গলাচিপায় ক্রয়কৃত সম্পত্তিতে প্রভাবশালীদের বাঁধা, দ্বারে দ্বারে ঘুরছে জমির মালিক, রাজশাহীতে ২০ বোতল ফেন্সিডিল ও ২০০ পিছ ইয়াবাসহ গ্রেফতার ১ জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছেন সাবেক এমপিকে গোপালগঞ্জের রূপালী ব্যাংকে  গ্রাহক হয়রানি

প্রটোকল নিয়ে প্রকাশিত মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদের প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন

  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১০৩ ০৫ বার পঠিত

মোঃ সামছু উদ্দিন ,নোয়াখালী প্রতিনিধি -ঃ নোয়াখালী জেলার সেনবাগে উপজেলায় ৪৩তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে টানানো ব্যানার উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কর্তৃক বিভিন্ন পত্রিকা ও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছিঁড়ে ফেলার মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন সেনবাগ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. গোলাম কবির। বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) রাত ৮টায় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এর কার্যালয়ে।গোলাম কবির সাংবাদিকদের কে জানান উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কার্যালয়ের আয়োজনে দুই দিনব্যাপী ৪৩তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ এবং বিজ্ঞান মেলার আয়োজন করা হয়। মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সেনবাগ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ সাইফুল ইসলাম মজুমদার।অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি করা হয় সেনবাগ পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র আবু নাছের ভিপি দুলাল,এরপর আমি ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মরিয়াম সুলতানা কে। বেলা ১১টার দিকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে আমি অংশ নিই এরপর আলোচনা সভার অনুষ্ঠানস্থলে প্রবেশ করে ব্যানারে অতিথিদের নামের তালিকা দেখে অভিযোগ করি।

ব্যানারে আমার নামের আগে কেন মেয়রের নাম হয়েছে এটা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে অনুষ্ঠানের সভাপতি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. নাজিম উদ্দিনকে ব্যানার নামিয়ে ফেলতে বলে আমি আমার অফিস কার্যালয়ে চলে আসি।এরপর মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সহ কয়েকজন শিক্ষক আমার অফিসে গিয়ে উক্ত বিষয়ে দুঃখ প্রকাশ করে আবার আমাকে অনুষ্ঠানে নিয়ে আসেন।এসে দেখি ঐ ব্যানারটি এখনো নামানো হয়নি।আমি আবারও ক্ষোভ প্রকাশ করি চলে আসি।এ ঘটনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান কিছুক্ষণের জন্য বন্ধ ছিল।পরে দেখি পত্রিকা ও সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যানার ছিঁড়ে ফেলার মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ আমার বিরুদ্ধে প্রকাশ করা হয়েছে। সেনবাগ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম কবির বলেন, অনিয়মের কারণে ব্যানার খুলে প্রোগ্রাম করতে বলেছি।উপজেলা চেয়ারম্যানের অনুপস্থিতিতে প্যানেল চেয়ারম্যান হিসেবে আমার নাম আসার কথা।তাছাড়া দুই ভাইস চেয়ারম্যানের পরে হবে মেয়রের নাম।নামগুলো উল্টাপাল্টা হওয়ার কারণে আমাদের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে।এজন্য আমি বলেছি ব্যানার খুলে ফেলার জন্য। এটা “খ” শ্রেণির পৌরসভা।

আর প্রোগ্রামটি ছিল উপজেলা প্রশাসনের, এটা পৌরসভার প্রোগ্রাম নয়।’ তিনি যথেষ্ট তথ্য প্রমাণ সহ সাংবাদিকদের সামনে সেনবাগ উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন অনিয়মের বিষয়ে কথা বলেন।তিনি আরও বলেন, নবনির্বাচিত মেয়র আবু নাছের দুলাল শপথ নেয়ার আগেই কিভাবে গত ৯ ডিসেম্বর উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের আয়োজনে ক্যান্সার ও বিভিন্ন জটিল রোগীদের জন্য ৯ লক্ষ টাকার চেক প্রধান অতিথি হিসেবে বিতরণ করেন তা নিয়েও কর্মকর্তাদের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করেন।এছাড়া গত ১৬ ডিসেম্বর পালন করা আলোচনা অনুষ্ঠানের বক্তব্য সিরিয়াল নিয়েও তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রটোকল/পদমর্যাদা ক্রম ওয়ারেন্ট অব প্রেসিডেন্স ১৯৮৬ (রিভাইসড ২০২০) অনুযায়ী উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এর পরে ‘খ’ শ্রেণির পৌরসভা মেয়র এর প্রটোকলের কথাও বলেন তিনি। সাংবাদিক সম্মেলনে সেনবাগ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ গোলাম কবির স্হানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, সচিব ও নোয়াখালী জেলা প্রশাসক মহোদয় এর কাছে এসব অনিয়মের সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ