1. crimeletter24@gmail.com : crimelet_crimelet :
শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:১১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
গণমাধ্যম ও মানবাধিকার সংস্থা ন্যাশনাল প্রেস সোসাইটি (এনপিএস) খুলনা বিভাগ লাকসাম আজগরা ইউপি আ’স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মী সমাবেশ ও পরিচিত সভা অনুষ্ঠিত গাজীপুরে দুদকের গণশুনানি অনুষ্ঠিত বিরামপুরে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ বগুড়ায় দুদিনব্যাপী জামাই মেলা: বড় মাছ কেনার লড়াইয়ে জামাই-শ্বশুর অভিযাত্রিক সাহিত্য ও সংস্কৃতি সংসদ-এর ২২৭২ তম সাপ্তাহিক সাহিত্য আসর অনুষ্ঠিত প্রশাসনের বন্ধ করা অবৈধ ইটভাটা ফের চালু তানোরে কৃষক দলের আহবায়ক কমিটি গঠন তানোরের দুই মেয়র গ্রেফতার এড়াতে আত্মগোপণে নাগেশ্বরীতে ১৮ টি সংখ্যালঘু পরিবার সরকারের সকল সুবিধা থেকে বঞ্চিত। বাস্তবায়ন হয়নি, মন্দিরের সংস্কার কাজ

তানোরে অবৈধ পুকুর খনন এলাকায় উত্তেজনা

  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২২
  • ৩৩ ০৫ বার পঠিত

তানোর (রাজশাহী) প্রতিনিধি -ঃ- রাজশাহীর তানোরে গ্রামবাসির বাধা উপেক্ষা ও নীতিমালা লঙ্ঘন করে অবৈধ পুকুর খনন এবং সরকারি পাকা রাস্তা নস্টের পাশাপাশি ফসলি জমি ভরাট করে মাটি বাণিজ্যর অভিযোগ উঠেছে। তবে রহস্যজনক কারণে উপজেলা প্রশাসন নিরব ভুমিকা পালন করে চলেছে। এঘটনায় গ্রামবাসির মাঝে চরম উত্তেজনা ও বিস্ফোরণমূখ পরিস্থিতি বিরাজ করছে। যেকোনো সময় বড় ধরনের অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটতে পারে বলে সাধারণ মানুষ শঙ্কিত হয়ে পড়েছে। গ্রামবাসি বলছে, প্রশাসন অবৈধ পুকুর খনন বন্ধ করছে না, যদি কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে তার দায় নিবে কে ? উপজেলা প্রশাসনকে একাধিকবার অবগত করা হলেও তারা বিষয়টি এড়িয়ে যাচ্ছে বলে গ্রামবাসির অভিযোগ।স্থানীয়রা বলছে, প্রশাসনের মদদ ব্যতিত প্রকাশ্যে দিবালোকে সরকারি পাকা রাস্তা নস্ট করে মাটি বানিজ্যে ও ফসলি জমি ভরাট হয় কিভাবে ? জনৈক রাজ্জাক, সাইদুল ও কালাম বলেন, গত শুক্রবার চাঁন্দুড়িয়া ইউপিতে উচু জমির মাটি কাটার অপরাধে ভ্রাম্যমান আদালতে দুই জনের কারাদন্ড দিয়েছেন ইউএনও সাহেব। অথচ আজিজপুর পুর্বপাড়া প্রকাশ্যে দিবালোকে পুকুর খনন করা হচ্ছে। তারা বলেন, বার বার জানানোর পরেও ইউএনও সাহেব কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না, কিন্ত্ত কেন-?
স্থানীয়রা জানান, উপজেলার কলমা ইউনিয়নের (ইউপি) আজিজপুর পুর্বপাড়া গ্রামে বিএনপি মতাদর্শী নজরুল ইসলাম প্রায় ১৫ দিন ধরে
পুকুর খনন করছে। এদিকে পুকুরের মাটি বিভিন্ন এলাকায় পরিবহণ করতে গিয়ে সরকারি কাঁচা-পাকা রাস্তা নষ্ট ও পরিবেশ দুষণ করা হচ্ছে। হালকা বৃষ্টি বা ভারী কুঁয়াশা হলে এসব রাস্তায় যানবাহন চলাচল কঠিন হয়ে পড়বে। সিদ্দিক নামের এক ভেঁকু দালাল বলেন, ইউএনও স্যার ও থানার অনুমতি নিতে অনেক খরচ হয়েছে, তাই মাটি বিক্রি করতে না পারলে পোষাবে না। আর মাটি বিক্রি করবেন বলেই তো খরচপাতি করে অনুমতি নেয়া, নইলে অনুমতির কি প্রয়োজন। অথচ ৬ মাসও হয়নি এই রাস্তাগুলো নির্মাণ করা। ওভারলোড অবৈধ মাটির ট্রাক চলাচল করায় এবং ট্রাক থেকে মাটি পড়ে এরি মধ্যে রাস্তার বেহাল অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। কৃষি কাজে ব্যবহৃত এসব ট্রাকের না কোন রোড পারমিট না আছে কোন বৈধ কাগজপত্র। কিন্ত্ত তারা রাস্তায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে চলেছে। ইউপি সদস্য আবুল কালাম বলেন, ভেঁকু দালালদের চরম দৌরাত্ম তারা অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন। কিন্ত্ত তারা বার বার চেষ্টা করেও অবৈধ মাটি বাণিজ্য বন্ধ করতে পারছেন না।কদিন পরেই এসএসসি পরীক্ষা, কিন্ত্ত ভেঁকু ও ট্রাক্টরের বিকট শব্দ ও ধুলাবালিতে জীবন অতিষ্ঠ, প্রশাসনকে বলেও কোনো কাজ হয়নি। তাই তারা গণমাধ্যম কর্মীদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। তিনি বলেন, পাকা-কাঁচা রাস্তাগুলো যেভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে তার দায় নিবে কে ? পুকুর মালিক নজরুল ইসলাম বলেন, ইউএনও সাহেব তাকে পুকুর খনন ও মাটি বিক্রির অনুমতি দিয়েছেন। এবিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী কার্যালয়ের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানান, মাসিক মিটিংয়ে আমরা এই বিষয়টি তুলে ধরেছি। কোন ভাবেই যেন মাটি পরিবহনের ট্রাকের কারণে বা মাটি পড়ে রাস্তার ক্ষতি না হয় আমরা সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে উপজেলা প্রশাসনকে অনুরোধ করেছি। কিন্ত্ত উপজেলা প্রশাসন রহস্যজনক ভুমিকা পালন করে চলেছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ