1. crimeletter24@gmail.com : crimelet_crimelet :
শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১১:৫২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
গণমাধ্যম ও মানবাধিকার সংস্থা ন্যাশনাল প্রেস সোসাইটি (এনপিএস) খুলনা বিভাগ লাকসাম আজগরা ইউপি আ’স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মী সমাবেশ ও পরিচিত সভা অনুষ্ঠিত গাজীপুরে দুদকের গণশুনানি অনুষ্ঠিত বিরামপুরে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ বগুড়ায় দুদিনব্যাপী জামাই মেলা: বড় মাছ কেনার লড়াইয়ে জামাই-শ্বশুর অভিযাত্রিক সাহিত্য ও সংস্কৃতি সংসদ-এর ২২৭২ তম সাপ্তাহিক সাহিত্য আসর অনুষ্ঠিত প্রশাসনের বন্ধ করা অবৈধ ইটভাটা ফের চালু তানোরে কৃষক দলের আহবায়ক কমিটি গঠন তানোরের দুই মেয়র গ্রেফতার এড়াতে আত্মগোপণে নাগেশ্বরীতে ১৮ টি সংখ্যালঘু পরিবার সরকারের সকল সুবিধা থেকে বঞ্চিত। বাস্তবায়ন হয়নি, মন্দিরের সংস্কার কাজ

ভারতে পাচার হতে যাওয়া কচ্ছপ অবমুক্ত করা হলো তিতাসে

  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর, ২০২২
  • ৩৭ ০৫ বার পঠিত

মইনুল ভূইয়া, ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি -ঃ- ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া সীমান্ত দিয়ে ভারতে পাচারের সময় ৫২টি কচ্ছপ উদ্ধার হয়েছে। পরে এসব কচ্ছপ তিতাস নদে অবমুক্ত করা হয়। শুক্রবার সকালে উপজেলার আব্দুল্লাহপুর এলাকা থেকে উদ্ধারের পর বিকেলে বড় বাজার তিতাস নদীর ঘাটে এসব কচ্ছপ অবমুক্ত করা হয়।  

বিজিবি সূত্র জানায়, সকাল ১১টার দিকে উপজেলার দক্ষিণ ইউনিয়নের ফকিরমোড়া বিজিবি ক্যাম্পের নায়েব সুবেদার মো. মনির হোসেনের নেতৃত্বে বিজিবির একটি টহল দল ভারত সীমান্তবর্তী আব্দুল্লাহপুর গ্রাম থেকে তিনটি বস্তায় ভর্তি অবস্থায় কচ্ছপগুলো উদ্ধার করে। কচ্ছপগুলো ভারতে পাচারের উদ্দেশ্যে আনা হয়েছিল বলে সংশ্লিষ্টদের ধারণা। তবে বিজিবি এ সময় কাউকে আটক করতে পারেনি। পরে আখাউড়া সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা রওনক জাহান, নায়েব সুবেদার মো. মনির হোসেন, ফরেস্টার আসাদুজ্জামান খানের উপস্থিতিতে এসব কচ্ছপ তিতাস নদে ছেড়ে দেওয়া হয়।

ফকিরমোড়া বিজিবি ক্যাম্পের নায়েব সুবেদার মো. মনির হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ২০২২ মেইন পিলারের ১০ সাব পিলারের ১০০ গজ অভ্যন্তরে আব্দুল্লাহপুর গ্রামের পাশে খালের পাড় থেকে মালিকবিহীন তিনটি বস্তা উদ্ধার করা হয়। পরে বস্তা খুলে বিরল প্রজাতির ৫২টি কচ্ছপ পাওয়া যায়। এগুলো ভারতে পাচারের উদ্দেশ্যে নিয়ে আসা হয়েছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। 

আখাউড়া উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা রওনক জাহান জানান, কচ্ছপগুলো দেখে বিরল প্রজাতির মনে হচ্ছিল। এগুলো জীব বৈচিত্রের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এদেরকে রক্ষায় আমাদের দায়িত্ব থেকেই মৎস্য সংরক্ষণ আইন এবং বন্য প্রাণী সংরক্ষণ আইনে কচ্ছপগুলো নদীতে অবমুক্ত করা হয়।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ